নোটিশ :
hathazarinews.com ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম...
সংবাদ শিরোনাম:
হাটহাজারীতে আগুনে পুড়ে ছাই ১৩ পরিবারের স্বপ্ন!

হাটহাজারীতে আগুনে পুড়ে ছাই ১৩ পরিবারের স্বপ্ন!

নিজস্ব প্রতিবেদক: হাটহাজারী উপজেলার গুমানমদ্দন ইউনিয়নের উত্তর ছাদেকনগর গ্রামস্থ শহর আলীর বাড়িতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় নগদ ৭ লক্ষাধিক টাকা সহ ১৩টি পরিবারের সমস্ত আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

শুক্রবার (১৭ মে) বিকালের দিকে হাটহাজারী ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন কর্মকর্তা মো. আবদুল মান্নান  ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে একইদিন বেলা ১১ টার দিকে উপজেলার গুমানমর্দ্দন ইউনিয়নের উত্তর ছাদেকনগর গ্রামস্থ শহর আলীর বাড়িতে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় , প্রত্যক্ষদর্শী, অগ্নিদূর্গতদের পারিবারিক ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার আনুমানিক বেলা এগারটার দিকে উল্লেখিত এলাকার শহর আলীর বাড়িতে হঠাৎ অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হলে আগুনের লেলিহান শিখা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে ওই বাড়ির ১৩ পরিবারের বসতঘর ঘরে রক্ষিত স্বর্ণালংকার, টাকা পয়সা, মূল্যবান কাগজ পত্র ও আসবাব পত্র সহ যাবতীয় মালামাল পুড়ে যায়। এতে তারা একেবারে নিঃস্ব হয়ে গেছে । অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলো হলো, মো. জসিম উদ্দিন, মো.জিসান উদ্দিন, মোহাম্মদ আলী, ওসমান আলী, আজগর আলী, মঞ্জুরুল আলম, করিম উদ্দিন, আবুল হোসেন, আবুল কাসেম, মো. আলী, মো.বেলাল উদ্দিন, মো. আলাউদ্দীন, জিয়াউল হক। ক্ষতিগ্রস্থদের মধ্যে ওসমান আলীর নগদ ৫ লাখ, মো. জসিম উদ্দিনের নগদ ১ লাখ, মো. জিসানের নগদ ৫০ হাজার টাকা সহ ৭ লক্ষাধিক নগদ টাকা আগুনে পুড়ে গেছে । প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে এতে ৫০ লক্ষাধিক টাকা মতো ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে। ঘরে বিদ্যূৎ সংযোগ থাকায় এবং টিনের ছাউনি হওয়ায় কেউ আগুন নিভাতে এগিয়ে যেতে সাহস পায়নি । পরে খবর পেয়ে হাটহাজারী ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আবদুল মান্নানের নেতৃত্বে কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। প্রচন্ড গরমের মধ্যে অগ্নিদূর্গত পরিবারের সদস্যরা বর্তমানে খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবন যাপন করছে বলে জানা গেছে।

গুমানমর্দ্দন ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোহাম্মদ আলমগীর অগ্নিকান্ডের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অগ্নিকান্ডে নগদ প্রায় ৭ লক্ষাধীক টাকাসহ ক্ষয়ক্ষতির পরিমান ৫০ লক্ষাধিক টাকা হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। রান্না ঘরের চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, অগ্নিদূর্গত পরিবারের প্রায় ৪৫ জন সদস্যের জন্য তিনি দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা করেছেন।

গুমানমর্দ্দন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান খবর পেয়ে অগ্নি দূর্গত এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

এদিকে সংবাদ পেয়ে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম মসিউজ্জামান অগ্নি দূর্গত এলাকা পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্তদের সাথে কথা বলেন। এসময় তিনি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অগ্নিদূর্গতদের সার্বিক সহযোগীতার আশ্বাস প্রদান করেন।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে ভাগ করুন




সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত,© এই সাইডের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পুর্ণ বেআইনি
Desing & Developed BY ServerNeed.com