নোটিশ :
hathazarinews.com ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম...
সংবাদ শিরোনাম:
হাটহাজারীতে দুই সিএনজি মুখোমুখী সংঘর্ষে আহত ১ হাটহাজারীতে ৬ বছরের শিশু মাহিকে মা সেজে অপহরণ করা দুই কিশোরীসহ গ্রেফতার ৪ বিদ্যুতের শর্ট থাকা ফ্রীজ খুলতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ঠে শিশুর মৃত্যু ওজনে কম দেয়ার অভিযোগে আমান বাজারে সিজলকে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা হিজরি নববর্ষ উপলক্ষে কুয়াইশ রহমানিয়া কাদেরিয়া সুন্নিয়া দাখিল মাদ্রাসার স্বাগত র্যালি নরমাল ডেলিভারিতে ১০টি শিশুর আগমন হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হাটহাজারীতে বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্কের প্রস্তাবিত জায়গা পরিদর্শন করেন উপসচিব মোখতার আহমেদ  মির্জাপুরে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্থ ১৩টি পরিবারকে আর্থিক অনুদান দূষণরোধের লক্ষ্যে হালদা নদী পরিদর্শন  হাটহাজারীতে মাদকসেবনে বাধা দেয়ায় ইউপি সদস্যকে ছুরিকাঘাত: থানায় মামলা দায়ের
মির্জাপুরে ভাগিনার হাতে মামা খুন, ঘাতক ভাগিনা কক্সবাজারে আটক

মির্জাপুরে ভাগিনার হাতে মামা খুন, ঘাতক ভাগিনা কক্সবাজারে আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক:

হাটহাজারী উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের বুলবুলি পাড়ায় জমি বিরোধের জেরে সিএনজি চালক মামা মুছাকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যার ১০দিন পর ঘাতক ভাগিনা শাহজাহান’কে কুতুবদিয়া থেকে আটক করেছে র‌্যাব-৭।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

রবিবার (১ মে) ভোর তাকে আটক করা হয়। বিজ্ঞাপনবিজ্ঞাপন

র্যাব ৭ এর সিনিয়র সহকারী মিডিয়া পরিচালক মোঃ নুরুল আবছার তাকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, নিহত ভিকটিম মুছা মিয়া পেশায় একজন সিএনজি চালক ছিলেন। মুছা মিয়া এবং তার সৎ ভাগিনা ধৃত আসামী শাহজাহানের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক ও জমি সংক্রান্ত ব্যাপারে বিরোধ চলছিলো।

এ সংক্রান্ত ব্যাপারে মুছা মিয়ার সৎ ভাগিনা একটি মামলা করলে উক্ত মামলায় মুছা মিয়া ০৬ মাসের হাজতবাস করেন। নিহত ভিকটিম মুছা মিয়া গত ৮ মার্চ ৬ মাসের হাজতবাস শেষে জামিনে মুক্তি পান। মুছা মিয়া জামিনে মুক্তি পেয়ে বাড়ি ফিরে আসার পর থেকে তার সৎ ভাগিনা শাহজাহান ও তার ভাইয়েরা মুছা মিয়াকে মেরে ফেলার হুমকি দিতে থাকে।

পরবর্তীতে ১৯ এপ্রিল আনুমানিক রাত ১০টার দিকে মুছা মিয়া সারাদিন সিএনজি চালিয়ে বাড়ী ফেরার উদ্দেশ্যে তার সৎ ভাগিনা শাহজাহানের বসত ঘরের পাশে চলাচলের রাস্তার উপর পৌঁছামাত্র আসামী শাহজাহানসহ তার অপরাপর সহযোগী মিলে পূর্ব শত্রæতার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে দেশীও ধারালো অস্ত্র দা ও কিরিচ দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে রক্তাক্ত করে মারাত্বকভাবে জখম করতঃ মৃত্যু নিশ্চিত করে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় নিহত ভিকটিমের স্ত্রী বাদী হয়ে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানায় ৬ জন নামীয় এবং ২/৩ জন অজ্ঞাত নামা করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। যার নং-২৫, তারিখ ২০ এপ্রিল, ধারা-৩০২/৩৪ পেনাল কোড ১৮৬০।

এই জঘন্য হত্যার ঘটনাটি চাঞ্চল্যকর ও লোহমর্ষক হওয়ায় এর সাথে জড়িত আসামীদের গ্রেফতারের জন্য র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জ হিসাবে গ্রহন করে ব্যাপক গোয়েন্দা নজরদারী এবং ছায়াতদন্ত অব্যাহত রাখে।

এরই প্রেক্ষিতে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম জানতে পারে যে, উল্লেখিত হত্যা মামলার সাথে সরাসরি জড়িত এজাহারনামীয় ২নং আসামী মোঃ শাহজাহান কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়া থানাধীন ধুরুং (প্রত্যান্ত দ্বীপ অঞ্চল) সাগরপাড় এলাকা অবস্থান করছে।

উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে গত ৩০ এপ্রিল বিকাল ৫টার দিকে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর একটি আভিযানিকদল বর্ণিত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আসামী মোঃ শাহজাহান (৫২), পিতা- মৃত ফুল মিয়া প্রঃ আব্দুল মালেক, সাং-বুলবুলি পাড়া, থানা- হাটহাজারী, জেলা- চট্টগ্রাম’কে আটক করতে সক্ষম হয়।

পরবর্তীতে উপস্থিত স্বাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামী উপরে উল্লেখিত জঘন্যতম হত্যা কান্ডের সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত ও অনত্যম পরিকল্পণাকারী ছিলো বলে অকপটে স্বীকার করে।

গ্রেফতারকৃত আসামীকে প্রাথমকি জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায়, নিহত ভিকটিম মুছা মিয়া ধৃত আসামী মোঃ শাহজাহানের সর্ম্পকে মামা হয়। মামার জায়গা জমি ভাগাভাগি নিয়ে বিরোধ এর কারনে পরিকল্পিতভাবে শাহজাহান ও তার ভাইদের নিয়ে ধারালো দা ও কিরিচ দিয়ে কুপিয়ে নির্মম ও নৃশংসভাবে তাদের মামাকে হত্যা করেছে।

গ্রেফতারকৃত আসামী সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে ভাগ করুন




সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত,© এই সাইডের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পুর্ণ বেআইনি
Desing & Developed BY ServerNeed.com