নোটিশ :
hathazarinews.com ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম...
সংবাদ শিরোনাম:
নেই বিএনপি-জামাতের প্রার্থী, আ.লীগের প্রতিপক্ষ আ.লীগ: ত্রিমুখী লড়াইয়ে এগিয়ে গণি প্রতিদ্বন্দ্বী দুই প্রার্থীর ৩২টি ভোট কেন্দ্র দখলসহ নানা অভিযোগ এনে ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী নোমানের সংবাদ সম্মেলন জাতির পিতার সমাধিতে সিডিএ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউনুসের শ্রদ্ধা নিবেদন হাটহাজারীতে আগুনে পুড়ে ছাই ১৩ পরিবারের স্বপ্ন! হাটহাজারীতে যুবলীগ নেতাকে হত্যা ও বাইক ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টার অভিযোগ ! বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সহসভাপতি নির্বাচিত হলেন সেলিম উদ্দিন রেজা প্রকাশ্যে দিনে দুপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে মারধর করে মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ  টেকনাফে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত হাটহাজারীর জাবীদ মাইন্উদ্দীন হালদায় নমুনা ডিম ছেড়েছে মা মাছ, জলবায়ু ও মনুষ্যসৃষ্ট ধ্বংসাত্মক কর্মকান্ডের নেতিবাচক প্রভাব! তিনতলা বিল্ডিংয়ের ছাঁদ থেকে পড়ে বাকপ্রতিবন্ধী যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু!
নোয়াখালীতে ১০১ কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ, পৌঁছানো হচ্ছে নির্বাচনী সরঞ্জাম

নোয়াখালীতে ১০১ কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ, পৌঁছানো হচ্ছে নির্বাচনী সরঞ্জাম

নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালীর সদর ও কবিরহাট উপজেলার ১৬টি ইউনিয়ন পরিষদের ভোট গ্রহণ রোববার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

সদরের ৯টি ইউনিয়নে ৯২টি ও কবিরহাটের ৭টি ইউনিয়নের ৬৬টি কেন্দ্রের একটানা ভোট গ্রহণ চলবে।

ইতোমধ্যে উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে প্রতিটি কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম পৌঁছানো হয়েছে। নির্বাচন নিয়ে প্রশাসনের করনীয়শীর্ষক ব্রিফিং করেছে জেলা পুলিশ। জেলার ১৫৮টি কেন্দ্রের মধ্যে ১০১টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূণ ঘোষণা করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

শনিবার দুুপুরে জিলা স্কুল মাঠে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের ব্রিফিং করেন জেলা পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম। একটি সুষ্ঠু ভোট উপহার দেওয়ার জন্য সবাইকে আন্তরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান তিনি।

জেলা নির্বাচন কার্যালয়ের তথ্যমতে, শুক্রবার রাতে শেষ হয়েছে প্রার্থীদের আনুষ্ঠানিক প্রচারণা।

সদরের ৯টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫২ ও কবিরহাটের ৭টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৩৬জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। সদরে ১লাখ ১১হাজার ২৬৬জন নারী, ১লাখ ২২হাজার ৫৩০জনসহ ২লাখ ৩৩হাজার ৭৯৬জন ভোটার রয়েছে। কবিরহাটে ৭০হাজার ১৩জন নারী ও ৭৫হাজার ৬১১জন পুরুষসহ মোট ভোটার রয়েছে ১ লাখ ৪৫হাজার ৬২৪জন।

জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ভোটের পরিবেশ সুন্দর ও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য প্রতিটি কেন্দ্রে ১জন পুলিশ কর্মকর্তা, ৩জন কনেস্টবল, ৭জন নারী সদস্যসহ ১৭জন আনসারসহ মোট ২২জন দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়াও পুলিশের মোবাইল টিম, গোয়েন্দা, স্ট্যাইকিং, সাদা পোশাকের পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি সদস্যরা মোতায়েন থাকবে। দায়িত্বে থাকবেন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে ভাগ করুন




সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত,© এই সাইডের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পুর্ণ বেআইনি
Desing & Developed BY ServerNeed.com